আজ রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি
আজ রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি

চার রাজ্যে ভোট গণনা বন্ধ চেয়ে ট্রাম্পের মামলা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে চার অঙ্গরাজ্যের ভোট গণনা বন্ধের দাবি জানিয়ে আদালতে মামলা করলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। অঙ্গরাজ্যগুলো হলো-জর্জিয়া, মিশিগান, পেনসিলভ্যানিয়া ও উইসকনসিন। খবর বিবিসি।

তবে মামলা করার আগেই মিশিগান ও উইসকনসিন রাজ্যে জয়ী ঘোষণা করা হয়েছে জো বাইডেনকে। ফলে এ দুটি রাজ্যের ১০টি এবং ১৬টি মলে মোট ২৬টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট চলে গেছে বাইডেনের ঘরে। বাইডেন এখন ২৬৪টি ইলেকটোরাল কলেজ ভোট জিতেছেন। অন্যদিকে জর্জিয়াতে সবশেষ তথ্যে বাইডেনের পক্ষে ভোট পড়েছে শতকরা ৪৯ ভাগ। ট্রাম্পের পক্ষে ৪৯.৮ ভাগ। এখনও সেখানে ভোট গণনা চলছে। এই রাজ্যে ইলেকটোরাল কলেজ ভোট আছে ১৬টি। জয়ের জন্য বাইডেনের প্রয়োজন আর মাত্র ৬টি । এ অবস্থায় তিনি জয়ের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছেন দাবি করেছেন। তবে ট্রাম্প জর্জিয়াসহ উল্লিখিত চারটি রাজ্যের ভোট গণনা বন্ধ করার জন্য আইনি চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন। সর্বশেষ তিনি এ বিষয়ে মামলা করেছেন জর্জিয়ায় ভোট গণনা বন্ধের দাবিতে।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ডেপুটি ক্যাম্পেইন ম্যানেজার জাস্টিন ক্লার্ক পেনসিলভেনিয়া সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করেছেন। নির্বাচনের তিন দিন পর পর্যন্ত ব্যালট প্রাপ্তি গণনা করা যায় কিনা এ বিষয়ে। অন্যান্য তিনটি অঙ্গরাজ্যেও স্থানীয় সুপ্রিম কোর্টে মামলা করা হয়েছে।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, একজন রিপাবলিকান পর্যবেক্ষক দেখতে পেয়েছেন, ব্যালটের সঙ্গে যোগ করা হয়েছে বিলম্বে পাওয়া ৫৩টি পোস্টাল ভোট। তবে এসব ভোট চ্যাথাম কাউন্টিতে যথা সময়ে পৌঁছেছে। জর্জিয়াতে নির্বাচনের রাত ৭টার মধ্যে ব্যালট পৌঁছানোর কথা। কিন্তু মামলায় বলা হয়েছে ওই সময়ের পরে এসব ব্যালট যোগ করা হয়েছে।

মামলায় বলা হয়েছে, ওই সময়ের পরে এসব ব্যালট যোগ করা হয়েছে। এর ফলে ভোট গণনায় জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছে ট্রাম্প শিবির। তবে এর স্বপক্ষে শক্ত কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি ট্রাম্প। মিশিগানেও ভোট বন্ধের দাবিতে মামলা করেছেন ট্রাম্প। সেখানে ভালো ব্যবধানে বাইডেন যখন জয়ের দ্বারপ্রান্তে তখন এই ভোট গণনা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে তিনি মামলা করেন।

ওদিকে, পেনসিলভ্যানিয়াতে নির্বাচনের তিন দিন পর পর্যন্ত ভোট গণনার অনুমতি আগে থেকেই দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট। সে অনুযায়ী ওই রাজ্য ভোট গণনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখানে নির্বাচনের দিন পর্যন্ত পাওয়া ভোট তিনদিন পর্যন্ত গণনা করা যাবে। কিন্তু এ সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন ট্রাম্প। এখনও এ রাজ্যে হাজার হাজার ভোট গণনার বাকি। উইসকনসিনে ‘অস্বাভাবিকতা’ দেখার পর ভোট আবার গণনার দাবি জানিয়েছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের টিম।

 

শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print