আজ শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ রমজান, ১৪৪২ হিজরি
আজ শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ রমজান, ১৪৪২ হিজরি

অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন সৌরভ, তিনটি ব্লক, বসলো একটি স্টেন্ট

হার্টঅ্যাটাকের ক্ষেত্রে গোল্ডেন মোমেন্ট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই গোল্ডেন পিরিয়ডে উপযুক্ত চিকিৎসা পেলে বেঁচে যায় আশি শতাংশ রোগী। ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেট অধিনায়ক ও ভারতীয় ক্রিকেট
বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় শনিবার দ্রুত হাসপাতালে যাওয়ায় অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন। শনিবার দুপুরে জিম করতে গিয়ে ট্রেড মিলেই মাথা ঘুরে পড়ে যান সৌরভ। তাকে সঙ্গে সঙ্গে পারিবারিক চিকিৎসকের পরামর্শে উডল্যান্ড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা সৌরভকে পরীক্ষা করে ভর্তি করে নেন। ডা. সরোজ মণ্ডলের তত্ত্বাবধানে পাঁচ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়। তারা সিদ্ধান্ত নেন সৌরভের আঞ্জিও প্লাস্টি করা হবে। সেই মতো শনিবার বিকালে আঞ্জিও প্লাস্টি করে দেখা যায় সৌরভের হৃদযন্ত্রে তিনটি ব্লকেজ আছে।
একটি নব্বই শতাংশ। বাকি দু’টি সত্তর শতাংশ। নব্বই শতাংশ ব্লকের ধমনীতে এদিনই একটি স্টেন্ট বসানো হয়। বাকি দু’টি সম্পর্কে চিকিৎসকরা ক’দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত নেবেন। উল্লেখ্য, সৌরভ শুক্রবার রাতে বুকে সামান্য ব্যথা অনুভব করেন। পারিবারিক চিকিৎসকের পরামর্শ নেন। শনিবার সকালে তার হাতে ব্যথা হয়েছিল। তা সত্ত্বেও তিনি জিম করতে যান। এরপরই অসুস্থতা।
সৌরভের অসুস্থতার খবর পেয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ দিল্লি থেকে ফোন করে খবর নেন। ছুটে আসেন লক্ষ্মী রতন শুক্লা। ভারতীয় দলের ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলি থেকে শুরু করে অস্থায়ী ক্যাপ্টেন অজিঙ্ক রাহানে এবং সৌরভের প্রাক্তন সতীর্থরা টুইট করে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের আরোগ্য কামনা করেন।
ওদিকে সন্ধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় সৌরভকে দেখতে উডল্যান্স হাসপাতালে পৌঁছান। সৌরভের কেবিনে গিয়ে তার সঙ্গে কথা বলেন। বেরিয়ে বলেন, সৌরভ আমাদের গর্ব। কিন্তু একদম শরীরের খেয়াল রাখে না। ওকে বলে এলাম, শরীর সম্পর্কে যত্নবান হওয়ার জন্য।

শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print