আজ রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি
আজ রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি

নানা আয়োজনে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে আজ বুধবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন আওয়ামী যুবলীগের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার সকাল ১০টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বর সড়কের সামনে রক্ষিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়। এ সময়ে আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল উপস্থিত ছিলেন।
এরপর ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ যুবলীগসহ প্রতিটি ওয়ার্ড কমিটির নেতৃবৃন্দ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে আলাদা আলাদা শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এর আগে সকাল ৯ টার দিক থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন ওয়ার্ড হতে বর্ণিল শোভাযাত্রাসহ যুবলীগের নেতাকর্মীরা ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে আসেন।
সকালে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও পায়রা উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শুভ সূচনা করেন শেখ ফজলে শামস পরশ ও মাইনুল হোসেন খান নিখিল।
এ সময় ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাঈন উদ্দিন রানা, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধনের পরসেখানে উপস্থিত দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে সাদাছড়ি, পক্ষাঘাত প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করা হয়। একইসঙ্গে প্রত্যেক প্রতিবন্ধীকে শাড়ি, লুঙ্গি, শীত বস্ত্রসহ নগদ অর্থ বিতরণ করেন যুবলীগ চেয়ারম্যান।
এ সময় সভাপতির বক্তব্যে যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর শহীদ শেখ ফজলুল হক মনি যুবলীগ প্রতিষ্ঠা করেন। আজ সেই যুবলীগের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবাষির্কী। প্রতিষ্ঠার পর হতেই নানা সংকট ও চ্যালেঞ্জ যুবলীগ মোকাবেলা করে যাচ্ছে। একেক দশকে যুবলীগ একক চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে এসেছে।’ তিনি বলেন, যেখানে অন্যায়, অত্যাচার, সেখানে যুবলীগ প্রতিবাদ করবে। অসহায়দের পাশে দাঁড়াবে। যুবলীগ কোনও এলিট শ্রেণিদের সংগঠন নয়, যুবলীগ সাধারণ মানুষের সঙ্গে ছিল এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।’
যুবলীগের চেয়ারম্যান বলেন, ‘আগামীতে যুবলীগ হবে মেধা ও রাজনৈতিক এবং সাংগঠনিক ক্ষমতা সম্পন্ন। যুবলীগে দুর্নীতি ও ক্যাসিনোবাজদের ঠাঁই হবে না। যুবলীগ মানুষের কল্যাণে কাজ করবে।’
এরপর বেলা ১১ টায় বনানী কবরস্থানে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শহীদ শেখ ফজলুল হক মণিসহ ‘৭৫-এর ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন ও ফাতেহা পাঠ এবং মোনাজাতে অংশ নেন যুবলীগ চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদক। পরে দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ করেন।
উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে শেখ ফজলুল হক মণির নেতৃত্বে ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক যুব কনভেশনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠা লাভ করে যুবলীগ। অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক ও শোষণমুক্ত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে যুবসমাজকে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্য নিয়েই প্রতিষ্ঠিত হয় এই সংগঠন।

শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print