আজ বুধবার, ২৩ জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি
আজ বুধবার, ২৩ জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৯ আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

ভ্যাকসিন যৌথ উৎপাদনে ফলপ্রসূ আলোচনা চলছে: চীনা রাষ্ট্রদূত

বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং বলেছেন, চীনের কাছ থেকে বাংলাদেশের ভ্যাকসিন সংগ্রহ এবং যৌথভাবে করোনার টিকা উৎপাদনের ব্যাপারে দুই দেশের মধ্যে ফলপ্রসূ আলোচনা চলছে।
বুধবার ইকোনিমক রিপোর্টার্স ফোরাম ও বাংলাদেশ চীন চেম্বার অব কমার্সে অ্যান্ড ইন্ডাসিট্রির (বিসিসিসিআই) যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন চীনা রাষ্ট্রদূত।

আলোচনায় চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং বলেন, চীনের দুঃসময়ে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে মেডিকেল সামগ্রী সহায়তার কথা ভুলবে না। এরই ধারাবাহিকতায়, বাংলাদেশের প্রয়োজনের বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে চীন।

তিনি জানান, চীন সরকার খুব দ্রুতই দ্বিতীয় দফায় উপহার স্বরূপ আরো টিকা পাঠাবে। আগামী ১৩ জুনের মধ্যে টিকা বাংলাদেশে এসে পৌঁছাবে বলে আশাব্যক্ত করেন রাষ্ট্রদূত লি।

আলোচনা সভায় বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) প্রধান মো. সিরাজুল ইসলাম, চীনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাহবুব-উজ-জামান, বিসিসিসিআই এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহ মো. সুলতান উদ্দিন ইকবাল এবং যুগ্ম মহাসচিব আল মামুন মৃধা, ইকোনিমক রিপোর্টার্স ফোরাম সভাপতি শারমিন রিনভি এবং অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।

উল্লেখ্য, গত ১২ মে চীন সরকারের পক্ষ থেকে ৫ লাখ ডোজ করোনার টিকা উপহার হিসেবে বাংলাদেশে আসার ৯ দিনের মাথায় চীন সরকার দ্বিতীয় দফায় উপহার স্বরূপ টিকা পাঠানোর ঘোষণা দেয়।

এছাড়া, গত ২৭ মে মন্ত্রিপরিষদ চীনের সিনোফার্মের কাছ থেকে দেড় কোটি ডোজ টিকা ক্রয়ের অনুমোদন দিয়েছে। চলমান জুন ও আগামী জুলাই, আগস্ট মাসের মধ্যে চীন থেকে ৫০ লাখ ডোজ টিকা আনার চেষ্টা করছে বাংলাদেশ।