আজ শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৪ বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ রমজান, ১৪৪২ হিজরি
আজ শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৪ বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ রমজান, ১৪৪২ হিজরি

প্রধানমন্ত্রীর কাছে বাইডেনের আমন্ত্রণপত্র নিয়ে জন কেরি ঢাকা আসছেন আজ

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত ও দেশটির সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি এক দিনের সংক্ষিপ্ত সফরে আজ শুক্রবার (৯ এপ্রিল) ঢাকা আসছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের উদ্যোগে আয়োজিত লিডার্স সামিট অন ক্লাইমেটে যোগ দেয়ার জন্য প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের আমন্ত্রণপত্র তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে পৌঁছে দেবেন। শীর্ষ সম্মেলনটি আগামী ২২ ও ২৩ এপ্রিল ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হবে। এতে বিশ্বের ৪০টি দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে দিল্লি থেকে মার্কিন বিমানবাহিনীর একটি বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা পৌঁছবেন জন কেরি। এরপর তিনি রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেন এবং পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী শাহাবউদ্দীনের সাথে বৈঠক করবেন।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে তার কার্যালয়ে যাবেন কেরি। ওই সময় তিনি প্রধানমন্ত্রীর হাতে জো বাইডেনের দেয়া লিডার্স সামিট অন ক্লাইমেটে যোগ দেয়ার আমন্ত্রণপত্র তুলে দেবেন।

কেরির সফরকে স্বাগত জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আব্দুল মোমেন বলেছেন, জলবায়ুসংক্রান্ত বাংলাদেশের অগ্রাধিকারে থাকা ইস্যুগুলো আমরা কেরির কাছে তুলে ধরবো। এ ব্যাপারে বাংলাদেশের নেয়া পদক্ষেপগুলো সম্পর্কে তাকে অবগত করা হবে। আমরা মনে করি, জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে খাপ-খাওয়ানো এ সমস্যা সমাধানের জন্য যথেষ্ঠ নয়। জলবায়ুর পরিবর্তনরোধের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। আর এই সংক্রান্ত প্রতিশ্রুতিগুলোর বাস্তবায়ন চায় বাংলাদেশ।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প জলবায়ু সংক্রান্ত প্যারিস চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নিয়েছিলেন। তবে প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেয়ার প্রথম দিনই জো বাইডেন এই সিদ্ধান্ত পাল্টে দেন। পরবর্তী সময়ে তিনি জলবায়ু বিষয়ে আলোচনার জন্য বিশ্ব নেতৃবৃন্দের একটি সম্মেলন আয়োজনের ঘোষণা দেন।

বাইডেন প্রশাসনের ক্ষমতা নেয়ার পর জন কেরি বাংলাদেশ সফরে আসা যুক্তরাষ্ট্রের সর্বোচ্চ কর্মকর্তা। তার সফরে জলবায়ু পরিবর্তন ছাড়াও রোহিঙ্গা সঙ্কটসহ দ্বিপক্ষীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতে সংক্ষিপ্ত পরিসরে আলোচনা হতে পারে। ঢাকায় তিনি আন্তর্জাতিক সংস্থা ও বিদেশি কূটনীতিকদের সাথেও মতবিনিময় করতে পারেন।

শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print