আজ শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৪ বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ রমজান, ১৪৪২ হিজরি
আজ শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৪ বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ রমজান, ১৪৪২ হিজরি

গোটা শহরকে হাসপাতাল বানালেও সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ‌্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, প্রতিদিন যে হারে আক্রান্তের সংখ‌্যা বাড়ছে, এ পরিস্থিতিতে গোটা শহরকে হাসপাতাল বানালেও সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে কোভিড হাসপাতাল পরিদর্শনকালে তিনি এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন সময়ে মিটিং মিছিল করেছেন এবং কোনো রকমের স্বাস্থ্যবিধি না মানেনি অনেকে। মাস্ক পরেননি। হাত স্যানিটাইজ করেনি। সামাজিক দূরুত্বও বজায় রাখেননি। এই ধরনের উদাসীনতা গত কয়েক মাস ধরে চলে এসেছে। আমরা ভ্যাকসিন দিয়েছি। কিন্তু ভ্যাকসিন নেওয়ার পরে অনেকে এতো বেশি বেপরোয়া হয়ে গেছি যে, আমরা মনে করেছি আমাদের আর করোনায় ধরবে না। দেখা গেছে যারা সংক্রমিত হয়েছে তাদের মধ্যে অনেকেই আবার ভ্যাকসিন নিয়েও আক্রান্ত হয়েছে। কারণ তাদের তো এখনো আমরা দ্বিতীয় ডোজ দেয়নি। এখনো তো তাদের শরীরে সেই ধরনের অ্যান্টিবডি তৈরি হয়নি। কিন্তু আমরা বেপরোয়া হয়ে ঘুরেছি। যার ফলে নিজে অনেক সংক্রমিত হয়েছে। নিজের পরিবারকে সংক্রমিত করেছে। এবং সমাজকে সংক্রমিত করেছে। স্বাস্থ্যবিধির প্রতি মানুষের এই অবহেলার কারণে এখন করোনায় মৃত্যুর হারও বেড়ে গেছে। আজকে মারা গেছে ৬৬ জন। সংক্রমিত হয়েছে সাত হাজারেরও বেশি। অথচ দিনে সংক্রমণের পরিমাণ এক সময় ছয়’শরও নিচে ছিল। এখন সেটা লাফিয়ে বাড়ছে। প্রতিদিন গিয়ে দাঁড়াচ্ছে ছয় হাজার, সাত হাজারে।

মন্ত্রী বলেন, আজকে আমরা বেখেয়ালিভাবে চললে কি পরিণতি যে হয় সেটা আপনারা সবাই দেখছেন। এই যে মৃত্যু হচ্ছে। এই যে জানমালের ক্ষতি হচ্ছে, এজন্য কারা দায়ী হলো? আমরা যারা স্বাস্থ্যবিধি মানি নাই তারা সবাই দায়ী হলাম। আমাদের ঘাড়ে এই দায় দায়িত্ব পড়ে।

 

শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print