আজ সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১১ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪২ হিজরি
আজ সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১১ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪২ হিজরি

‘জাতির পিতার দেওয়া শিক্ষাকে পুঁজি করে মানুষের জন্য কাজ করছি’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অসহায় ও দুস্থ মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর মতো কঠিন কাজ বাস্তবায়নে নিজের জীবনের সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য পরিত্যাগ করেন। মৃত্যুকে সামনে দেখেও তিনি লক্ষ্য থেকে বিচ্যুত হননি। জাতির পিতার থেকে পাওয়া সেই শিক্ষাকে পুঁজি করেই অসহায় মানুষের জন্য কাজ করছি।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির বিভিন্ন ভাতা কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘গৃহহারা বা ভূমিহীন মানুষের একটা ঠিকানা দেওয়ার চেষ্টা করছি। এটা জাতির পিতার একটা স্বপ্ন ছিল। আমরা সেটা বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করছি। ভূমিহীন মানুষকে একটা ঠিকানা দেওয়ার কাজ জাতির পিতা শুরু করেছিলেন। সেই অনুসারে আমরা বিনা পয়সায় ঘর তৈরি করে দিচ্ছি, বিনা পয়সায় ছয় মাসের খাবার দিচ্ছি। তাদের টাকা দিয়ে ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করেছি।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘১৯৯৬ সালে সরকার গঠন করে আমরা উদ্যোগ নিলাম, আমাদের দেশে যারা বৃদ্ধ, নির্যাতিতা তাদের ভাতা’র আওতায় নিয়ে আসার। পর্যায়ক্রমে আমরা শারীরিক প্রতিবন্ধীদের নিয়ে কাজ শুরু করি। সবচেয়ে অবহেলিত ছিল মুক্তিযোদ্ধারা। তাদেরও আমরা ভাতা দেওয়া শুরু করি।’

যাদের ভিটামাটি আছে কিন্তু ঘর করার টাকা নাই তাদের জন্য গৃহায়ণ তহবিল নামে একটি তহবিল করে দেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সেখান থেকে যেকোনো এনজিও বা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে টাকা নিয়ে ঘর করতে পারবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য ছিল, অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানো। আমরা সেটা করতে পেরেছি। অসহায় বা বৃদ্ধদের সংসারে কোনো অবস্থান থাকে না। কিন্তু তাদের নামে যদি টাকা-পয়সা যায়, হাতে যদি কিছু নগদ টাকা যায়, তাহলে পরিবার থেকে সম্মান দেবে।’

শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print