আজ শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২ হিজরি
আজ শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২ হিজরি

করোনা রোধে সচেতনতা বাড়াতে অভিনব উদ্যোগ

শাহাদাত হোসাইন স্বাধীন

বিশ্ববাপী স্বাভাবিক জীবনযাপনকে থামিয়ে দিয়েছে করোনাভাইরাস। সংক্রমণের প্রথম ঢেউয়ের পর কোনো কোনো দেশে সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। বাংলাদেশেও চলমান শীতে করোনা সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। পরবর্তী সংক্রমণ মোকাবিলায় সরকারের পক্ষ থেকে বারবার মাস্ক পরার ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে।

তাই তো মাস্ক পরার জন্য জনসচেতনতামূলক বিভিন্ন কর্মসূচিও হাতে নেওয়া হয়েছে। সেইসাথে সরকারি- বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’ নির্দেশনা চালু করা হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শুধু সঠিক পদ্ধতিতে মাস্ক পরিধান করার মাধ্যমে ৯০% করোনা ঝুঁকি এড়ানো যায়।

ফলে করোনা প্রতিরোধে জীবনযাত্রা স্বাভাবিক রেখে চলতে মাস্ক পরার কোনো বিকল্প নেই। তাই এবার মাস্ক পরা নিয়ে জনসচেতনতা তৈরি করতে রাস্তায় আলপনা এঁকেছেন চট্টগ্রামের কিছু যুবক। জেলার লোহাগাড়া উপজেলার আলুরঘাট সড়ক সাতকানিয়াকে লোহাগাড়ার সাথে সংযুক্ত করে চলে গেছে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে।

আলুরঘাট সড়ক দিয়ে প্রতিদিন কয়েক হাজার গাড়ি ও মানুষ যাতায়াত করে। কিন্তু সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে সচেতন নয় এ অঞ্চলের বেশিরভাগ মানুষ। ফলে মানুষকে করোনা সচেতনতায় মাস্ক পরিধান করতে উৎসাহিত করতে ‘মাস্ক পরিধান করুন’ শিরোনামে সড়কের বিভিন্ন অংশে আলপনা এঁকেছেন উপজেলার পশ্চিম আমিরাবাদ গ্রামের কিছু যুবক।

মূলত নিজেদের মধ্য থেকে চাঁদা তুলে আলপনার রং কিনেছেন তারা। এরপর রাতভর নানা রঙে সড়কের বুকে ফুটিয়ে তুলেছেন আলপনা। আর সড়কের কয়েক অংশে এঁকে দেন ‘মাস্ক পড়ুন’ লেখা। আলপনা আঁকা যুবকদের মধ্যে রয়েছেন কালাম, ফারুক, রাকিব, জাওয়াদ, রাইয়ান, হাসান, খলিল, তারেক, মারুফসহ কয়েকজন তরুণ।

তাদের একজন রাকিবুল হক। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘শীত যত বাড়ছে; মানুষের ঠান্ডাজনিত রোগ তত বাড়ছে। এসব সর্দি-কাশি রোগের কারণে অনেক সময় করোনা সংক্রমণের শিকার হলেও মানুষ আমলে নিচ্ছে না। ফলে সংক্রমণ বাড়ছে। কিন্তু মানুষ সচেতন হয়ে মাস্ক পরছে না।’

তিনি বলেন, ‘আমরা মানুষের সাথে আলাপে-গল্পে মাস্ক পরতে উৎসাহিত করছি। কিন্তু প্রতিদিন আর কত মানুষের সাথে দেখা করা যায়? তাই সিদ্ধান্ত নিলাম, রাস্তায় প্রতিদিন চলা এত মানুষকে সচেতন করতে রাস্তায় মাস্ক পরার সচেতনতায় আলপনা আঁকলে ভালো হয়।’

মানুষের কাছে বিষয়টি আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে তারা আলপনা আঁকার সিদ্ধান্ত নেন। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশব্যাপী চলা জনসচেতনতায় এটাই তাদের অভিনব প্রয়াস।

লেখক: ফিচার লেখক।

শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print