আজ বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ রজব, ১৪৪২ হিজরি
আজ বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ রজব, ১৪৪২ হিজরি

কারাগারের ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, গাজীপুরের কাশিমপুর-১ কারাগারে যে ঘটনা ঘটেছে, তা জঘন্য অপরাধ। এর সঙ্গে যারা জড়িত, তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে  এ কথা জানান তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে রোববার (২৪ জানুয়ারি) আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে। তবে এটুকু বলতে পারি, প্রাথমিকভাবে যারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের প্রত্যাহার করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। প্রয়োজনে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে, এ ঘটনার পর অতিরিক্ত আইজি প্রিজনস আবরার হোসেনকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। এরপর প্রাথমিক তদন্তে একজন ডেপুটি জেলারসহ ৩ জনের এ ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকায় তাদের রোববার রাতেই প্রত্যাহার করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে তদন্ত করা হচ্ছে।

কারাগারে সিসি ফুটেজে দেখা গেছে, গত ৬ জানুয়ারি কারাগারে প্রবেশ পথে কর্মকর্তাদের কার্যালয় সংলগ্ন এলাকায় কালো রঙের জামা পরে স্বাচ্ছন্দ্যে ঘোরাফেরা করছেন ঋণ কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িত হলমার্কের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) তুষার আহমেদ। তিনি সেখানে আসার কিছু সময় পর বাইরে থেকে বেগুনি রঙের সালোয়ার কামিজ পরা এক নারী সেখানে প্রবেশ করেন। কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার রত্মা রায় ও ডেপুটি জেলার সাকলাইনের উপস্থিতিতেই এ ঘটনা ঘটে। তাদের সহযোগিতার বিষয়টিও সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা গেছে। দুপুর ১২টা ৫৫মিনিটে কারাগারের দুই যুবকের সঙ্গে ওই নারী কর্মকর্তাদের কক্ষে প্রবেশ করছেন। সেখানে তাকে অভ্যর্থনা জানান ডেপুটি জেলার সাকলাইন।

ওই নারী প্রবেশ করার পর অফিস থেকে বেরিয়ে যান ডেপুটি জেলার সাকলাইন। আনুমানিক ১০ মিনিট পর সেখানে বন্দি তুষারকে আনা হয়। এরপর তারা একটি কক্ষে ৪৫ মিনিট অবস্থান করেন। তবে ওই কক্ষের ভেতরে এ সময় কি হয়েছে তা নিয়ে তদন্ত চলছে।

শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print