আজ মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি
আজ মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরি

আমন কাটা শুরু, ফলন ও দামে খুশি কৃষক

মাগুরায় এবার আমনের ফলন ভালো হয়েছে। কৃষকেরা সোনালি ধান ঘরে তুলতে শুরু করেছেন। ফলন ভালো হওয়ায় এবার উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলে কৃষি বিভাগ জানিয়েছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, মাগুরা সদর, শালিখার আড়পাড়া, শ্রীপুর ও মোহম্মদপুর উপজেলার বিভিন্ন হাটে নতুন ধান উঠতে শুরু করেছে। চিকন ধান প্রতিমণ ১০৫০ থেকে ১১০০ টাকা, মোটা ধান ৯০০ থেকে ৯৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কৃষকেরা জানিয়েছেন গতবারের তুলনায় এবার ধানের দাম বেশি পাচ্ছেন তারা।

 

মোহম্মদপুর উপজেলা সদরের কৃষক আকরাম আলী বলেন, ‘এ বছর আমনের ফলন ও দাম দুটোই ভালো।’
সদরের আড়পাড়া এলাকার কৃষক আলমগীর হোসেন, নজরুল ইসলাম ও আরিফুল ইসলাম জানান, অন্যান্য বছরের মতো এবার আমনের খেতে পোকামাকড়ের আক্রমণ ছিল না। ফলে ফলন ভালো হয়েছে।

নহাটা এলাকার কৃষক মোহাম্মদ আলী বলেন, ‘এ বছর মৌসুমে প্রয়োজনীয় বৃষ্টি হয়েছে। গত বছরের তুলনায় আবহাওয়াও অনুকূলে ছিলো। এতে উৎপাদন খরচ কম হওয়ায় লাভ বেশি হবে।’

 

 

জেলা কৃষি কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে জেলার চার উপজেলায় ৫৩ হাজার ২১৯ হেক্টর জমিতে আমান ধান চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। এরমধ্যে সদর উপজেলায় ২০ হাজার ৫১৫ হেক্টর, শ্রীপুর উপজেলায় ৯ হাজার ৯৮৩ হেক্টর, শালিখা উপজেলায় ১২ হাজার ৩২০ হেক্টর, ও মোহম্মদপুর উপজেলায় ১০ হাজার ৪০১ হেক্টর জমিতে রোপা আমন ধান চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। চাষ হয়েছে ৬১ হাজার ৫৮৫ হেক্টর জমিতে। যা লক্ষ‌্যমাত্রার তুলায় ৮ হাজার ৩৬৬ হেক্টর বেশি। চাষকৃত জমি থেকে ১ লাখ ৭৪ হাজার ৯২২ মেট্রিক টন চাল উৎপানের লক্ষ‌্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। চলতি মৌসুমে বিরি-৫৬, বিরি-৫৭, বিরি-৩৯ বিরি-৩৩, বিনা-৭,বিআর-১১, জিএস-১, গুটি স্বর্ণসহ বিভিন্ন জাতের উচ্চ ফলনশীল জাতের আমন ধান চাষ হয়েছে।

জেলা কৃষি বিভাগের উপপরিচালক সুশান্ত কুমার প্রামাণিক বলেন, ‘মাঠপর্যায়ে কৃষি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিবিড় তত্বাবধানের ফলে গত বছরের তুলনায় এবার আমনের ফলন ভালো হয়েছে।’

শেয়ার করুন:
Share on Facebook
Facebook
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
Print this page
Print