আজ সোমবার, ৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
আজ সোমবার, ৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি

মুন্সীগঞ্জে শাপলা তুলতে গিয়ে বজ্রপাতে ৩ শিশুর মৃত্যু

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি উপজেলার ধামারন গ্রামের বিলে শাপলা কুড়াতে গিয়ে বজ্রপাতে ৩ শিশুর কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দুপুর ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
মৃতরা হচ্ছে উপজেলার পশ্চিম ধামারণ গ্রামের মোমেন আলী বেপারীর ছেলে রবিউল হাসান, একই উপজেলার সোনারং গ্রামের কামালের ছেলে সাইফুল ইসলাম লামিম ও সোনারং গ্রামের সাইফুল মোল্লার মেয়ে সানজিদা আক্তার। এ সময় সিফাত নামে অপর কিশোর আহত হয়। হতাহতরা মামাতো ও ফুফাতো ভাই-বোন।

টঙ্গীবাড়ি থানার ওসি রাজিব খান বজ্রপাতে ৩ শিশু-কিশোরের মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, দক্ষিণ ধামারণ গ্রামের বিলে দুপুরে শাপলা কুড়াতে যায় ৪ শিশু-কিশোর। নৌকায় চড়ে শাপলা কুড়ানোর সময় বজ্রপাতে ওই শিশু-কিশোরদের শরীর ঝলসে যায়। এ সময় বিলে থাকা স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে ৩ জনকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে সেখানকার জরুরি বিভাগে চিকিৎসক রবিউল, লামিম ও সানজিদাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত শিশু সিফাতকে টঙ্গীবাড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে, শিশু-কিশোরদের মৃত্যুর খবরে স্বজনরা ছুটে আসেন মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে। এ সময় স্বজনদের আহাজারিতে সেখানে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

মৃত কিশোর রবিউলের বাবা মোমেন আলী বেপারী বলেন, আমি অন্যত্র কাজে ছিলাম। খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসি। সেখানে দেখতে পাই আমার সন্তান ও ভাগনি মারা গেছে।

মৃত সানজিদার বাবা সাইফুল মোল্লা বলেন, ৪ ভাই-বোন মিলে বিলে শাপলা কুড়াতে যায়। বজ্রপাত তাদের জীবন কেড়ে নিয়েছে।

শেয়ার করুন
Share on Facebook
Facebook
Pin on Pinterest
Pinterest
Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin