আজ বৃহস্পতিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০শে মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি
আজ বৃহস্পতিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২০শে মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি

আরও ৩ মাস অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়ার উদ্যোগ

করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় নতুন শিক্ষাবর্ষ ২০২১ শুরু হয়েছে। শিক্ষার্থীদের পাঠের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে আরও ৩ মাস অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

জানা গেছে, ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) নির্ধারিত সিলেবাসের আওতায় শিক্ষার্থীদের শিখন মূল্যায়নের জন্য এটি প্রণয়ন করেছে। আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত এ সিলেবাস নির্ধারণ করে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠিয়েছে এনসিটিবি কর্তৃপক্ষ। তবে নতুন এ শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের কোনো অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হবে না বলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে।

মাউশি সূত্রে জানা গেছে, বাংলা, ইরেজি, গণিত, বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়, বিজ্ঞান, কৃষিশিক্ষা ও গার্হস্থ্য বিজ্ঞান, এ সাতটি বিষয়ের প্রণীত সিলেবাস ও অ্যাসাইনমেন্টের হার্ড ও সফট কপি মাউশিতে পাঠিয়েছে এনসিটিবি। পর্যায়ক্রমে অন্য বিষয়গুলোর সিলেবাস ও অ্যাসাইনমেন্ট পাঠানো হবে। একইসঙ্গে নতুন শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা চালিয়ে নিতে ফের চালু হবে সংসদ টিভি, রেডিওসহ অনলাইন ক্লাস।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মঙ্গলবার এনসিটিবি চেয়ারম্যান অধ্যাপক নারায়ন চন্দ্র সাহা বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খুলছে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। তবে এ বন্ধ সময়ের মধ্যে আমরা এপ্রিল পর্যন্ত একটি পাঠ পরিকল্পনা তৈরি করেছি। সেটির ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের এসাইনমেন্ট দেওয়া হবে।’

আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত অ্যাসাইনমেন্ট দিতে মাউশিতে পাঠানো হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘মাউশি এটি পরিচালনা করবে। অতীত অভিজ্ঞতার আলোকে শিক্ষকরা অ্যাসাইনমেন্ট মূল্যায়ন করবেন।’